728x280

বিশ্বের সবথেকে বিষধর 10 টি সাপ !! / world top 10 Venomous Snakes

সাপের নাম শোনেনি বা সাপ কোনদিন দেখেনি এমন মানুষ পৃথিবীতে খুঁজলে হয়তো খুব কমই পাওয়া যাবে বিশ্বজুড়ে যার নাম একডাকে সবাই চেনে সাপ ।
আর এই সাপ দেখে ভয় পাই না এমন মানুষ পৃথিবীতে খুঁজলে খুব কমই মিলবে , কিন্তু মজার বিষয় হল যে- সাপ দেখতে যতই ভয়ংকর হোক না কেন সব সাপের কিন্তু বিষ নেই ।
 আজ আমরা আপনাদের সামনে 10 টি ভয়ংকর সাপের পরিচিতি করিয়ে দেব যেগুলিতে পৃথিবীর সবচেয়ে ভয়ংকর সাপ ।

১) ইনল্যান্ড তাইপেনঃ-   বিশ্বের সবচেয়ে বিষধর সাপ ইনল্যান্ড তাইপেন।এই সাপ সাধারণত অস্ট্রেলিয়ার প্রান্তদেশে দেখা যায় , এর এক ছবলে যে পরিমান বিশ ছাড়ে তাতে ৬০ থেকে ১০০ জ‌ন মানুষ মারতে পারে , এগুলো প্রায় আট ফুটের মতো হয়ে থাকে।


 ইনল্যান্ড তাইপেন সাপ


২)    ব্ল্যাক মাম্বাঃ- বিশ্বের দ্বিতীয় স্থানে বিষধর সাপ ব্লাক মাম্বা। এই  সাপের শরীরের ওপরের দিকটা সাদা এবং মুখের ভেতরের অংশ কালো , এই সবগুলো ঘণ্টায় প্রায় ২০ কিলোমিটার গতিতে চলতে পারে 
 আর এই সাপ কাউকে যদি একবার ছোবল মারে তার মৃত্যু নিশ্চিত মাত্র কয়েক মিনিটের মধ্যে তাকে মৃত্যুর কোলে ঢলে ফেলবে 
 তাছাড়া এই সবগুলো একই সারিতে পরপর ১২ থেকে ১৫ বার পর্যন্ত ছোবল মারতে পারে


ব্ল্যাক মাম্বা

৩) পাইথনঃ-  বিশ্বের তৃতীয় স্থানে থাকা সাপ পাইথন এই সাপটিকে বিশ্বের দৈত্য সাপ বলা হয়ে থাকে , পৃথিবীতে এই সাপটি যে কিনা পুরো মানুষকে গিলে ফেলতে পারে 
ঘুমন্ত মানুষকে অনায়াসে গিলে নাচতে নাচতে ঘরে আসতে পারে
 এই সাপগুলো লম্বায় প্রায় 20 ফুট হয়ে থাকে , কিন্তু মজার বিষয় এই সাপের ছোবলে কোন বিষ নেই কিন্তু অনায়াসেই যে কাউকে ধরে গিলতে পারে বলে একে বিশ্বের তৃতীয় স্থানে রাখা হয়েছে


পাইথন সাপ

৪) কালকেটেঃ- কালকেউটে সাপ ১৪ থেকে ১৫ ফুট লম্বা হয় 
  এই সাপ শরীরের প্রায় এক-তৃতীয়াংশ মাটির ওপরে ফণা তুলতে পারে। এই সাপের এক ছোবলে  দুই চা চামচ পরিমাণ বিষ ছোড়তে পারে। যা ২০ জন প্রাপ্তবয়স্ক মানুষকে মেরে ফেলার জন্য যথেষ্ট।



কালকেটে সাপ

৫) ভাইপারঃ- এশিয়ার প্রায় সব স্থানেই এই সাপের বসবাস । এই সবগুলি বেশিরভাগ সময় নোংরা অপরিচ্ছন্ন বাড়ির আশেপাশে বা নারকেল গাছের পাতার ভাঁজে চুপ করে বসে থাকে , সাধারনত এই সাপ লম্বায় প্রায় 5 ফুট হয়ে থাকে পৃথিবীতে একমাত্র প্রজাতির এই সাপ যার ছবলে বিষ মাংসকে গলিয়ে দিতে পারে।


ভাইপার সাপ

৬) বেলচার সি স্নেকঃ- উত্তর-পূর্ব এশিয়া দক্ষিণ অস্ট্রেলিয়ার সাগরে এই সাপের বসবাস এই সাপের মাত্র কয়েক মিলিগ্রাম বিষই ১০০০ মানুষকে মেরে ফেলার জন্য যথেষ্ট।ভয়ঙ্কর সাপের তালিকায় এই সাপ ছয় নাম্বার স্থানে আছে । তবে মজার ব্যাপার হলো একটু আদর পেলে এরা সহজেই বশ মানে।


বেলচার সি স্নেক সাপ

৭)স্পিটিং কোবরাঃ-  এই সাপ আফ্রিকার জঙ্গলে দেখতে পাওয়া যায়
 সাধারণত এই সাপগুলো শুয়ে শুয়েই 8 থেকে 10 দূরের যেকোনো শিকারকে বিষ ছুড়ে
কাবু করতে পারে , এদের দৈর্ঘ্য ছয় ফুটের বেশি হয় না। এরা কামড় দেওয়া থেকে বিষ ছুড়তেই বেশি পছন্দ করে।  


স্পিটিং কোবরা সাপ

৮)ব্লু ক্রেইটঃ- দক্ষিণ পূর্ব-এশিয়া ইন্দোনেশিয়ায় সাপ বেশি পাওয়া যায়। এই সাপের কামড় কোবরার ১৬ বার কামড়ের সমান । এরা রাতে বেলা চলাচল শিকার করে থাকে 


ব্লু ক্রেইট সাপ

৯)ইস্টার্ন ব্রাউন স্নেকঃ- অস্ট্রেলিয়ার ঘনবসতিপূর্ণ অঞ্চলে থাকতেই বেশি পছন্দ করে এই সাপ , শুধু চলমান মানুষ বা বস্তুকেই আক্রমণ করে থাকে ।  আর এর বিষ এতটাই বিপজ্জনক যে, এর এক ছোবল একজন পূর্ণবয়স্ক মানুষের মৃত্যুর জন্য যথেষ্ট।


ইস্টার্ন ব্রাউন স্নেক

১০)ডেথ এডারঃ-  এই সাপ অস্ট্রেলিয়া দেখা যায় । এই সাপ  এক ছোবলে  ৪০ থেকে ১০০ গ্রাম পর্যন্ত বিষ ঢালতে পারে।  এরা .১৩ সেকেন্ডের মধ্যে কামড় দিয়ে আবার আগের অবস্থায় ফিরে আসতে পারে।
মাথা অনেকটা ত্রিভুজাকৃতির আর  এর মাথার ভিন্নতার কারণে এটি দেখতে অনেকটা ভয়ঙ্কর। এর কামড়ে মানব দেহ প্যারালাইসিস হতে পারে অথবা মানুষের শ্বাস প্রশ্বাস বন্ধ হয়ে  সর্বোচ্চ ছয় ঘণ্টার মধ্যে মারা যেতে পারেন।আর এই সাপের শরীরও বেশ মোটাসোটা  ্হয় 


ডেথ এডার সাপ

No comments

Theme images by Jason Morrow. Powered by Blogger.